জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় অনার্স ভর্তি বিজ্ঞপ্তি ২০২০২০২১. অনার্স স্নাতক সম্মান ভর্তি নোটিশ ২০২০-২১ জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি বিষয়ক ওয়েবসাইট www.admissions.nu.edu.bd অথবা nu.edu.bd/admissions তে প্রকাশিত হবে । আজকে ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষের ১ম বর্ষ স্নাতক (সম্মান) শ্রেণীতে ভর্তি সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্যাবলী আলাচনা করা হল ।

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় অনার্স ভর্তি বিজ্ঞপ্তি ২০২০২১

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষে স্নাতক (সম্মান) শ্রেণি অনার্স প্রথম বর্ষে  ভর্তির আবেদনের সময়সূচি প্রকাশ করেছে।  জাতীয়   বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. হারুন-অর-রশিদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত ভর্তি কমিটির সাধারণ সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় (এনইউ), বাংলাদেশ সমগ্র বিশ্বের তৃতীয় বৃহত্তম বিশ্ববিদ্যালয়। এটি ১৯৯২ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়েছিল। এটির সদর দফতর গাজীপুরে। এটি রাষ্ট্রের পাশাপাশি জনসাধারণ দ্বারাও পরিচালিত হয়। এটি ৪ টি একাডেমিক প্রশংসাপত্র সরবরাহ করে। তারা:

১।আন্ডার গ্রাজুয়েট স্টাডিজ স্কুল

২। স্নাতকোত্তর স্টাডিজ প্রশিক্ষণ ও গবেষণা কেন্দ্র

৩। এম। ফিল। / পিএইচডি প্রোগ্রামার

৪। পাঠ্যক্রমের উন্নয়ন ও মূল্যায়ন কেন্দ্র

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে ২,২৫৪ টি কলেজ রয়েছে। এই কলেজটি বিপুল সংখ্যক শিক্ষার্থীর সাথে পাস, অনার্স এবং স্নাতকোত্তর ডিগ্রি সরবরাহ করে। আন্ডার গ্রাজুয়েটে ১৭,৫৫৫,২৬৬ জন শিক্ষার্থী এবং স্নাতকোত্তর এই শিক্ষার্থীর সংখ্যা ৩,৩৪৬,৫৫৩ জন।

অনার্স ভর্তি টাইমলাইন
  • আবেদন শুরুর তারিখঃ ০৮ জুন ২০২১
  • আবেদনের শেষ তারিখঃ ২২ জুন ২০২১
  • আবেদন ফি : ২৫০ টাকা
  • ক্লাস শুরু :
  • আবেদনের লিংক:  nu.ac.bd/admissions

আবেদন ফি

২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষে ভর্তি আবেদন ফি- ২৫০ টাকা। কলেজ আবেদনকারির প্রদত্ত ফি থেকে ১৫০ টাকা হারে সোনালী ব্যাংকে জমা দিবে। এ লক্ষ্যে সংস্লিষ্ট কলেজকে লহ ইন করে এপ্লিকেশন পেমেন্ট ইনফো (অনার্স) অপশনে ক্লিক করতে হবে। সেখান থেকে পে স্লিপ ডাউনলোড করতে হবে। এরপর সংস্লিষ্ট সঞ্চয়ি হিসাব নম্বরে অর্থ জমা দিয়ে রশিদ সংগ্রহ করতে হবে।

আবেদনের যোগ্যতা

  • শিক্ষার্থী যে কোন শিক্ষা বোর্ড এর যে কোন শাখা থেকে এসএসসি বা সমমান ২০১৭/ ২০১৮ এবং এইচএসসি বা সমমান ২০১৯/ ২০২০সালের পরীক্ষায় ৪র্থ বিষয় সহ নূন্যতম ২.০০ জিপিএ প্রাপ্ত প্রার্থীরা আবেদন করতে পারবে।।
  • অন্যান্য শিক্ষা বোর্ড/ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এস এস সি ও এইচ এস সি সমমানের পরীক্ষায় উত্তীর্ণ প্রাথীরা উপরোক্ত শর্ত সাপেক্ষে আবেদন করতে পারবে। বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষা বোর্ডের এইচ এস সি সমমান কোর্সসমূহ থেকে-

১। এইচ এস সি (ভোকেশনাল)

২। এইচ এস সি (বিজনেস্ ম্যানেজমেন্ট)

৩। ডিপ্লোমা-ইন-কমার্স পরীক্ষায় উত্তীর্ণ প্রার্থীরা এ ভর্তি কার্যক্রমে আবেদন করতে পারবে।

  • প্রার্থীদের উচ্চ মাধ্যমিক/সমমানের পরীক্ষায় পঠিত বিষয়সমূহ থেকে ভর্তি যোগ্য (Eligible) বিষয় নির্ধারণ করা হবে। উক্ত পঠিত বিষয়ে (২০০ নম্বরের) ন্যূনতম গ্রেড পয়েন্ট ৩.০ থাকতে হবে।
  • ২০১৭/ ২০১৮ সালের ‘O Level’ পরীক্ষায় তিনটি বিষয়ে ‘বি’ গ্রেডসহ অন্তত ০৪ (চার) টি বিষয়ে উত্তীর্ণ এবং ২০১৯/ ২০২০ সালের ‘A Level’ পরীক্ষায় একটি বিষয়ে ‘বি’ গ্রেডসহ অন্তত ০২ (দুই) টি বিষয়ে উত্তীর্ণ প্রার্থীরা এ ভর্তি কার্যক্রমে আবেদন করতে পারবে তবে প্রার্থীদের ভর্তি নির্দেশিকার অন্যান্য সকল শর্ত পূরণ করতে হবে। এ সকল প্রার্থীদের ডীন, স্নাতকপূর্ব শিক্ষা বিষয়ক স্কুল, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে সরাসরি যোগাযোগ করতে হবে।
  • বিদেশী সার্টিফিকেটধারী প্রার্থীদের ক্ষেত্রেও বাংলাদেশ এ স্বীকৃত যে কোন শিক্ষা বোর্ড কর্তৃক তাদের অর্জিত মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ের নম্বর পত্রের সমতা নিরূপণ করা হলে তারাও ভর্তির প্রাথমিক আবেদন করতে পারবে। বিদেশী সার্টিফিকেটধারী প্রার্থীদের আবেদনের ক্ষেত্রে ভর্তি নির্দেশিকার সকল শর্ত পূরণ করতে হবে। এ সকল প্রার্থীদেরকে ডীন, স্নাতকপূর্ব শিক্ষা বিষয়ক স্কুল, জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে সরাসরি যোগাযোগ করতে হবে।
  • আবেদনকারী উচ্চ মাধ্যমিক বা সমমান পরীক্ষায় যে শাখা থেকে উত্তীর্ণ হয়েছে তাকে সেই শাখার জন্য নির্ধারিত ভর্তির প্রাথমিক আবেদন ফরম পূরণ করতে হবে। উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষায় গার্হস্থ্য অর্থনীতি শাখা থেকে উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীর মানবিক শাখার আবেদন ফরম পূরণ করতে হবে।
  • শিক্ষার্থী ১টি মাত্র কলেজে আবেদন করতে পারবে।

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পদ্ধতি

  • ভর্তি পরীক্ষা ছাড়াই এসএসসি ও এইচএসসি ফলাফলের ভিত্তিতে ছাত্রছাত্রী ভর্তি করানো হবে। প্রতিটি কলেজের জন্য আলাদাভাবে মেধা তালিকা তৈরী করে পরীক্ষার্থীদের পছন্দক্রম অনুযায়ী ১ম বর্ষ স্নাতক (সম্মান) শ্রেণির বিষয় বরাদ্দ দেয়া হবে।
  • একই প্রতিষ্ঠান/ কলেজে একই বিষয়ে দুই বা ততোধিক আবেদনকারীর প্রাপ্ত ফলাফল একই হলে সেক্ষেওে এ সকল আবেদনকারীর পর্যায়ক্রমে

১। ৪র্থ বিষয়সহ এস এস সি ও এইচ এস সি পরীক্ষায় প্রাপ্ত জিপিএ এর যথাক্রমে ৪০% ও ৬০%

২। প্রয়োজন হলে এস এস সি ও এইচ এস সি পরীক্ষার মোট প্রাপ্ত নম্বরের যথাক্রমে ৪০% ও ৬০%

৩। এর পরেও যদি দুই বা ততোধিক আবেদনকারীর প্রাপ্ত ফলাফল একই হয়, তা হলে যার বয়স কম হবে তাকে অগ্রাধিকার দেয়া হবে।

অনার্স ভর্তি নোটিশ ২০২০২০২১

 

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষে স্নাতক (সম্মান) শ্রেণি অনার্স প্রথম বর্ষে  ভর্তি নোটিশ এখনও প্রকাশিত হয়নি। প্রকাশিত হওয়ার সাথে সাথেই আমরা নিচে আপডেট দিব।  ভর্তি বিষয়ে অধিক তথ্য প্রদানের জন্য আমরা গত বছরের নোটিশটি নিচে প্রদান করেছি।

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি ২০১৯-২০

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি ২০১৯-২০

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি ২০১৯-২০

অনার্স ভর্তি আবেদন পদ্ধতি

  • প্রথমে আবেদঙ্কারিকে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের নিজস্ব ওয়েবসাইটে http://www.nu.ac.bd/admissionগিয়ে অথবাedu.bd/admissions অপ্সহনে ক্লিক করতে হবে।
  • তারপর নির্ধারিত স্থানে মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক বা সমমান পরিক্ষার রোল নম্বর, শিক্ষাবোর্ড বা বিশ্ববিদ্যালয়ের নাম ও পাশের শন দিতে হবে।
  • আবাদনকারিকে তার লিঙ্গ নির্ধারণ (Male/ Female) সিলেক্ট করতে হবে।
  • এরপর আবেদঙ্কারির পছন্দ অনুযায়ী যেকোন কলেজের নামের তালিকা থেকে সিলেক্ট করতে পারবে। তখন সেই কলেজের আসন সংখ্যা ও বিষয়সমূহ দেখতে পাওয়া যাবে। এই তালিকা থেকে সতর্কতার সাথে প্রার্থী তার পছন্দের বিষয় পছন্দ করবে।
  • মুক্তিযোদ্ধার সন্তান, আদিবাসি, প্রতিবন্ধী, পোষ্য কোটায় ভর্তি হতে ইচ্ছুক প্রার্থীকে নির্দিষ্ট স্থানে তার কোটাটি সিলেক্ট করবে। একজন যদি একাধীক কোটার যোগ্য হয় তবে কোটার পছন্দক্রম নির্ধারণ করে দিতে হবে।
  • আবেদনের সময় প্রার্থীর পাসপোর্ট আকারের সম্প্রতি তোলা রঙিন ছবি স্ক্যান করে আপলোড করে দিতে হবে। ছবিটি ১২০ × ১৫০ পিক্সেল হবে এবং জেপিজি ফরম্যাটে হবে সেই সাথে সাইজ হবে ৫০ কেবি।
  • সকল তথ্য সঠিকভাবে পুরণ করে এবং সদ্য তলা ছবি দিয়ে আবেদনটি চূড়ান্ত করার পুর্বে সকল কিছু চেক করে নিবেন। কারণ আবেদনে কোনরূপ অসত্য কতৃপক্ষের দৃষ্টিতে আসলে আবেদন বাতিল হয়ে যেতে পারে। সকল কিছু পরিক্ষা করে সাবমিট বাটনে ক্লিক করে আবেদনটি চূড়ান্ত করুন।
  • এরপর আবেদনকারি তার রোল ও পিন নম্বর পাবে। সেটি সংরক্ষন করে রাখতে হবে।
  • অবশেষে আবেদনটি প্রিন্ট করে রেখে দিতে হবে। পরবর্তী ভর্তি প্রক্রিয়ার জন্য এটি সংরক্ষন করে রাখুন।
l

আবেদন ফরম বাতিলকরণ

আবেদন চূড়ান্ত করার পর প্রার্থী যদি দেখে যে তার আবেদনে কোনো ভুল বা ত্রুটি আছে তবে সে আবেদনটি কেন্সেল করে নতুন করে আবেদন করতে পারবে। তবে সেটা শুধুমাত্র একবার ই কেন্সেল বা পরিবর্তন করার সুযোগ দিবে কতৃপক্ষ।

এজন্য প্রথমেই আবেদনকারীকে আবেদন ফরমের রোল ও পিন নম্বর প্রদান করে লগ ইন করতে হবে। এ পর্যায়ে ফরম কেন্সেল বা ছবি পরিবর্তন অপশন এ ক্লিক করতে হবে।  সেখানে সে জেনারেট দি সিকিউরিটি কি অপশন পাবে। সেখানে নিজের মোবাইল নম্বর প্রদানের মাধ্যমে One Time Password (OTP) পাবে। এটির মাধ্যমে আবেদনকারি তার পুরনো আবেদন বাতিল করে নতুন আবেদন পুর্বের মত করেই পুরন করবে।

অনার্স ভর্তি ফলাফল ২০২০-২১

আবেদন করার সাত দিনের মধ্যেই অনার্স ভর্তি ফলাফল ২০২০-২০২১ প্রকাশ করা হবে।

অনলাইনে ফলাফলঃ

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় তাদের নিজস্ব ওয়েবসাইটে http://www.nu.ac.bd/ ফলাফল প্রকাশ করবে। সেখানে আবেদন পত্রের রোল ও পিন নম্বর প্রদান করে প্রার্থী তার রেজাল্ট দেখতে পারবে।

এস এম এস এ ফলাফলঃ

এস এম এস এর মাধ্যমে ফলাফল দেখার নিয়ম নিচে দেওয়া হলোঃ

NU <space> ATHN <space> আপনার ভর্তি পরীক্ষার রোল নম্বর

এরপর পাঠাতে হবে 16222 এই নম্বরে।

এখানে, NU = National University

ATHN = Admission Test Honors

Admission Roll No = অনলাইনে ভর্তির আবেদন ফরমে প্রাপ্ত রোল নম্বর বোঝানো হয়েছে।

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি ফলাফলে ধাপসমূহ

যেমনঃ

  • ১ম মেধাতালিকা
  • ২য় মেধা তালিকা (আসন খালি থাকা সাপেক্ষে) ও মাইগ্রেসন
  • কোটা ও মাইগ্রেসনএবং
  • রিলিজ স্লিপ।

সুতরাং, পরবর্তীতে ২য় মেধাতালিকা প্রকাশ হবে এবং তখন অনেকেই সুযোগ পাবেন। আর ২য় মেধাতালিকায় সুযোগ না পেলেও রিলিজ স্লিপের মাধ্যমে কোন না কোন কলেজে ভর্তি হতে পারবেন। ২য় মেধা তালিকা প্রকাশ হলে এখানে পাওয়া যাবে।

ভর্তি হতে যে সকল কাগজপত্র লাগবে

  • অনলাইন থেকে মূল আবেদন ফর্মের – ২ সেট ( অবশ্যই A4 অফসেট সাদা কাগজেকালার প্রিন্ট করতে হবে)।
  • প্রাথমিক আবেদনের প্রবেশপত্র -২সেট।
  • পাসপোর্ট সাইজের ছবি ৪টি এবং স্ট্যাম্প সাইজ ৪টি পেছনে নাম লিখে দিতে হবে (কলেজভেদে কম বেশি হতে পারে)।
  • এসএসসি ও এইচএসসি এর সনদপত্র/প্রশংসা পত্রের সত্যায়িত ফটোকপি – ২ সেট।
  • এসএসসি ও এইচএসসি মূল নম্বরপত্রের (এইচএসসি এর মুল কপি) সত্যায়িত ফটোকপি – ২ সেট।
  • এসএসসি ও এইচএসসি রেজিস্ট্রেশন কার্ডের (এইচএসসি এর মুল কপি) সত্যায়িত ফটোকপি – ২ সেট।
  • টাকা জমার রশিদ।
  • চারিত্রিক সনদপত্র (সাধারণত লাগেনা, কোন কোন কলেজে লাগতে পারে) – ২ টি।

উল্লেখ্য, সকল কাগজপত্র ২ কপি করে ২সেট বানাতে হবে যার এক কপি বিভাগীয় সেমিনারে এবং এক কপি অফিসে জমা দিতে হবে।

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি ২০১৯-২০ সম্পর্কে কোন ধরনের তথ্য পেতে আমাদের ওয়েবসাইটে সর্বদা নজর রাখুন। আপনি অবিলম্বে আপডেট পেতে আমাদের ফেসবুক পাতা এবং গ্রুপে যোগ দিতে পারেন। অন্যথায় আপনি আমাদের মন্তব্য বিভাগে আপনার প্রশ্ন লিখতে পারেন। আমাদের সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদ।

 

 

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *